অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা ২০২৩ আবেদন করার নিয়ম ও ভিসা খরচ

4.8
(1272)

আসসালামু আলাইকুম সম্মানিত পাঠক আপনি কি অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা ২০২৩ সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা আবেদন, (ভিসা খরচ) সহ অস্ট্রেলিয়া ভিসার প্রয়োজনীয় কিছু তথ্য নিয়ে আমাদের আজকের নিবন্ধনটি তৈরি করা হয়েছে।

তাই আপনি যদি অস্ট্রেলিয়া ভিসা সম্পর্কে জানতে চান তাহলে অবশ্যই নিবন্ধনটি পড়ুন।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা 2023 কত টাকা লাগে এই বিষয়ে যারা জানেন না বা কাজের ভিসা খরচ কত এই বিষয়ে যারা অবগত নয় তাদের জন্য মূলত আমাদের আজকের এই নিবন্ধন।

চলুন আমরা অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা সহ অস্ট্রেলিয়া ভিজিট ভিসা অস্ট্রেলিয়া ওয়ার্কার ভিসা সহ কয়েকটি বিষয় সম্পর্কে জানব বিস্তারিত।

আরো পড়ুনঃ ইতালিতে লোক নিয়োগ

এখন থেকে অস্ট্রেলিয়ান ভিসা সম্পর্কে জানতে আর দালালের কাছে নয় এখন থেকে অনলাইনে সব কিছু আপনি যাচাই-বাছাই করতে পারবেন কখন ভিসা চালু হয়েছে ভিসা আবেদন কিভাবে করবেন বা অস্ট্রেলিয়ান ভিসা খরচ কত টাকা।

এই সকল বিষয়ে তাই আপনি যদি অস্ট্রেলিয়া যেতে আগ্রহী হয়ে থাকেন বা অস্ট্রেলিয়া ভিসা সম্পর্কে জানতে চান তাহলে অবশ্যই সম্পূর্ণ নিবন্ধনটি করুন চলুন আমরা ২০২৩ সালে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা সম্পর্কে জেনে নেই।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা ২০২৩ আবেদন, (ভিসা খরচ)
অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা ২০২৩

করোনা মহামারির কারণে নাটকীয়ভাবে অস্ট্রেলিয়ার অভিবাসন সংখ্যা প্রভাবিত হয়। তাই অস্ট্রেলিয়া স্বরাষ্ট্র দপ্তরের এক মুখপাত্র বলেছেন, ২০২৩ সালে রাজ্য ও অঞ্চলের জন্য ৩৫ হাজার ভিসার দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

ব্যবসায়িক উদ্ভাবন এবং বিনিয়োগের জন্য আরও ৫ হাজার ভিসা বেশি দেওয়া হবে। 2023 সালে প্রায় ৪০ হাজার ৫০০ পার্টনার ভিসা ইস্যু করবে অস্ট্রেলিয়ান সরকার।

৩,০০০ এর বেশি চাইল্ড ভিসা দেওয়া হবে। এর আগে রাজ্যগুলোকে ২৫ হাজার ৩৪৬টি মনোনীত ভিসা ও ৬৪৭টি দক্ষ আঞ্চলিক ভিসা দেওয়া হয়েছিল। একই সাথে শিক্ষক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বিশেষ সুবিধা দিয়ে তাদের নেশা যাচাই করা হচ্ছে মাত্র ৩ দিনে।

আরো পড়ুনঃ ইতালির ভিসা কবে খুলবে 

বাংলাদেশ থেকেও প্রতিবছর প্রায় ৩০ থেকে ৪০ হাজার লোক অস্ট্রেলিয়া কাজের বিষয়ে নিয়োগ করা হয় তাই আপনি যদি অস্ট্রেলিয়া কাজের বিষয়ে যেতে চান তাহলে ২০২৩ সালে অস্ট্রেলিয়ান কাজের ভিসার জন্য আবেদন করুন। আবেদন প্রক্রিয়া নিচে বর্ণনা করবো সেখান থেকে দেখে নিতে পারেন।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা 2023 কত টাকা লাগে

বাংলাদেশ থেকে যারা অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা নিয়ে যেতে চাচ্ছেন তাদের জন্য রয়েছে বিশেষ খবর কারণ বর্তমান সময়ে অস্ট্রেলিয়া কাজের বিষয় যেতে খরচ অনেক অংশেই কমে গিয়েছে।

তবে আপনি যদি সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যেতে পারেন তাহলেই শুধুমাত্র কম খরচে যেতে পারবেন আর যদি এজেন্সি অথবা দালালের মাধ্যমে যান তাহলে বেশি টাকা খরচ হবে।

বর্তমান সময়ে সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় যাওয়ার খরচ ২ থেকে ৩ লক্ষ টাকা। তবে বেসরকারি বা এজেন্সির মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়া যেতে খরচ হবে ৬ থেকে ৮ লক্ষ টাকা। আবার দালালের মাধ্যমে কাগজপত্র রেডি করা সহ ভিসা দালালের মাধ্যমে নিতে এ থেকেও বেশি খরচ হতে পারে।

আরো পড়ুনঃ মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে

তাই আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় যেতে চান তাহলে অবশ্যই সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় যাওয়ার চেষ্টা করবেন কারণ শুধুমাত্র অস্ট্রেলিয়া নয় বিশ্বাস যে কোন দেশে সেই সরকারিভাবে যেতে পারলে খুবই কম খরচে এবং ভালো পর্যায়ে যেতে পারবেন।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা আবেদন 2023

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় আবেদন করতে immi.homeaffairs.gov.au এই লিঙ্কে গিয়ে মেনু থেকে Visa অপশনটি সিলেক্ট করুন এবং working in Australia এখানে ক্লিক করে skill সিলেক্ট করে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা আবেদন সম্পন্ন করে ভিসা আবেদন PDF ডাউনলোড করুন।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় কয়েকটি পদ্ধতিতে আবেদন করা যায় আপনি যদি কোন এজেন্সির মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়া যেতে চান তাহলে তারাই আপনার কাজের ভিসায় আবেদন করে দিবে।

আপনি যদি কোন দালাল ধরে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় যান তাহলে সেই দালাল আপনার কাছ থেকে টাকা নিয়ে ভিসা আবেদন করবে অথবা যদি কু চক্রান্তকারী দালাল হয়ে থাকে তাহলে আপনার টাকা মেরে দেবে।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা খরচ ২০২৩

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা খরচ সরকারিভাবে ২ থেকে ৩ লক্ষ টাকা তবে বেসরকারি বা এজেন্সির মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় যাওয়ার খরচ প্রায় 6 থেকে 8 লক্ষ টাকা আবার অনেক সময় দালালের মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়া যাওয়া হয় তখন দালালের মাধ্যমে অস্ট্রেলিয়া যেতে প্রায় 8 থেকে 10 লক্ষ টাকা খরচ হতে পারে।

আরো পড়ুনঃ ইউরোপের কোন দেশের ভিসা সহজে পাওয়া যায়

তাই অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় যেতে কত টাকা খরচ হবে এই বিষয়ে একুরেট কোন তথ্য দেওয়া যাচ্ছেনা আপনি যদি কাজের বিষয়ে যেতে চায় তাহলে কোন একটা এজেন্সির সাথে যোগাযোগ করতে পারেন তাহলে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা খরচ সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পেয়ে যাবেন তাদের কাছ থেকে।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা বেতন কত 2023

আমরা সকলে জানি অস্ট্রেলিয়া একটি উন্নত দেশ আর এ দেশে অনেকেরই যাওয়াটা একটি শব্দ থাকে আর এই স্বপ্নের দেশে গেলে অবশ্যই সবার আশা থাকে ভালো বেতনে কাজ করবে বা কাজের ভিসায় কি ভালো টাকা উপার্জন করবে। আর এজন্যই হয়তো আপনি জানতে চাচ্ছেন অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় বেতন কত টাকা পাওয়া যায়।

বর্তমান সময়ে আপনি যদি অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা যান তাহলে প্রতি মাসে 40 থেকে ৮০ হাজার টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন প্রতি মাসে কিছু কিছু কাজে এর থেকেও বেশি টাকা ইনকাম করা যায় আর ওভারটাইমসহ এর থেকেও বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

তাই exact কত টাকা কাজের বিষয়কে ইনকাম করতে পারবেন এটা এখানে বসে বলা যাচ্ছে না কারণ যেকোনো সময় টাকার মান কমতে পারে অথবা কাজ কম থাকতে পারে ওভারটাইম কম থাকতে পারে এ সকল বিষয়গুলোর উপর নির্ভর করেই মূলত বেতন কত পড়বে সেটা নির্ভর করে।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

প্রতিটি দেশে যাওয়ার জন্যই কিছু রিকোয়ারমেন্ট থাকে বা কিছু কাগজপত্র প্রয়োজন হয় ঠিক তেমনি অস্ট্রেলিয়া কাজের বিষয়ে যেতে হলেও প্রয়োজনীয় কিছু কাগজপত্র রয়েছে চলুন আমরা দেখেনি অস্ট্রেলিয়া ভিসায় যেতে হলে আপনার কি কি কাগজপত্র লাগতে পারে।

  • প্রথমত আপনার একটি বৈধ পাসপোর্ট এর প্রয়োজন হবে।
  • পাসপোর্ট এর মেয়াদ সর্বনিম্ন 6 মাস বা তার বেশি থাকতে হবে।
  • ভোটার আইডি কার্ড এর প্রয়োজন হবে।
  • পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট এর প্রয়োজন হবে।
  • মেডিকেল রিপোর্ট ফিট থাকতে হবে।
  • করোনা টিকা কার্ড এর প্রয়োজন হবে।
  • আপনি যে কাজের জন্য যাবেন সেই কাজের ওপর অভিজ্ঞতা এর প্রয়োজন হবে।
হোম পেজ Tech Bongo 24
মালয়েশিয়া ভিসা খবর মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে
ইতালির ভিসা খবর ইতালির ভিসা কবে খুলবে 
ইতালিতে শ্রমিক নিয়োগ ইতালিতে লোক নিয়োগ

সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার উপায় ২০২৩

বিভিন্ন জেলায় বিএমইটি’র কার্যালয়ে সরাসরি উপস্থিত হয়ে নিবন্ধন করা যাবে। কেন্দ্রে গিয়ে নিবন্ধনে ২০০ টাকা ফি দিতে হবে। অ্যাপের মাধ্যমে নিবন্ধন করলে ২০০ টাকার সঙ্গে অতিরিক্ত ১০০ টাকা ‘আমি প্রবাসী’ অ্যাপের সার্ভিস চার্জ হিসেবে পরিশোধ করতে হবে।

দক্ষতা সনদ ছাড়াও ১৮ থেকে ৪৫ বছর বয়সী যে কেউ সরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার জন্য নিবন্ধন করতে পারবেন।

FAQ 

অস্ট্রেলিয়ায় কাজের ভিসার জন্য কি IELTS লাগে?

অস্ট্রেলিয়ান স্থায়ী বসবাসের জন্য ভিসা পেতে, আপনি IELTS একাডেমিক বা IELTS সাধারণ প্রশিক্ষণ নিতে পারেন। তবে অস্ট্রেলিয়ায় কাজের ভিসার জন্য আপনার IELTS একাডেমিক প্রয়োজন ।

অস্ট্রেলিয়ায় ওয়ার্ক হলিডে ভিসার বয়সসীমা কত?

অস্ট্রেলিয়া ওয়ার্ক হলিডে ভিসার বয়সসীমা হচ্ছে ১৮ থেকে ৩০ বছর পর্যন্ত তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে বা কিছু কিছু দেশভিত্তিক এর থেকে বেশি ৫ বছর বাড়িয়ে ৩৫ বছর পর্যন্ত বয়স সীমা ধরা হয়।

শেষ কথা

সম্মানিত পাঠ্যবৃন্দ আমাদের আজকের নিবন্ধনে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা ২০২৩ সম্পর্কে আলোচনা করেছি কাজের বিষয়ে খরচ বেশি আবেদন সহ আরো কয়েকটি বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি আশা করি আপনারা অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা ২০২৩ সম্পর্কে আপনাদের যদি আরো কোন মতামত থাকে সেটি আমাদের জানাতে পারেন আমরা যথাসম্ভব আপনাদের কমেন্টের রিপ্লাই দেওয়ার চেষ্টা করব প্রতিনিয়ত ভিসা সম্পর্কিত তথ্য জানতে আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন এতক্ষণ পর্যন্ত আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ। সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আল্লাহ হাফেজ।

How useful was this post?

Click on a star to rate it!

Average rating 4.8 / 5. Vote count: 1272

No votes so far! Be the first to rate this post.

As you found this post useful...

Follow us on social media!

We are sorry that this post was not useful for you!

Let us improve this post!

Tell us how we can improve this post?

14 thoughts on “অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা ২০২৩ আবেদন করার নিয়ম ও ভিসা খরচ”

  1. আসসালামু আলাইকুম ,ভাই আমি ফেসবুকে বিজ্ঞপ্তি দেখেছি অস্ট্রেলিয়া মাল্টা তুলার কাজের বেতন 400000 টাকা। ভাই তথ্যটি কি সঠিক?দয়া করে যানাবেন।

    Reply

Leave a Comment